শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত খবর :
অটিস্টিক শিশুদের আবাসন ও কর্মসংস্থান করবে সরকার   ||   নারীর প্রতি যৌন ও পারিবারিক সহিংসতা ক্রমাগতই বাড়ছে   ||   শান্তিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের নব-নির্বাচিত সভাপতি হলেন মৃত্যুঞ্জয়ী ছাত্রনেতা ছদরুল ইসলাম  ||

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গেমিং অ্যাপ ‘আমার বঙ্গবন্ধু’

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৪৭৮ বার পঠিত:
আপডেট সময় : রবিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২২
বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গেমিং অ্যাপ ‘আমার বঙ্গবন্ধু’

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও আদর্শের ওপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে গেমিং অ্যাপ ‘আমার বঙ্গবন্ধু’। রোববার (১৬ জানুয়ারি) মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অ্যাপটির উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) অধিদপ্তরের যৌথ উদ্যোগে এ অ্যাপটি তৈরি করা হয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের তরুণ প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে জানাতে অ্যাপটি ভূমিকা রাখবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী যে কমিটি গঠন করে দিয়েছেন, সেই কমিটি সবসময় চেষ্টা করছে, নতুন প্রজন্মের কাছে কীভাবে বঙ্গবন্ধুকে পৌঁছানো যায়।’ তিনি বলেন, ‘এ প্রথম কোনো মহান নেতাকে নিয়ে আমরা এমন একটা গেম চালু করছি। এটা বিশ্বের মধ্যেও হয়তো প্রথম। আমরা একটা ভালো উদ্যোগ নিতে পেরেছি।’

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ‘আমার বঙ্গবন্ধু’ গেমিং অ্যাপের মাধ্যমে এক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। এ প্রতিযোগিতায় প্রথম গ্রুপে সর্বোচ্চ ১০ বছর বয়সী, দ্বিতীয় গ্রুপে ১০ থেকে ১৮ বছর এবং তৃতীয় গ্রুপে ১৮ বছরের বেশি বয়সী শিক্ষার্থীরা অংশ নিতে পারবেন। অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে বিজয়ীদের জন্য পুরস্কার হিসেবে থাকবে বই, স্মার্টফোন, ট্যাব ও ল্যাপটপ।

রোববার থেকেই শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতায় ২৬ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত অংশগ্রহণ করা যাবে। প্রতিযোগীকে ২৯টি ধাপ অতিক্রম করে গেমটি সম্পন্ন করতে হবে। একজন প্রতিযোগী একাধিকবার অংশ নিতে পারবেন এবং প্রতিবার অংশ নেওয়ার পর সার্ভারে তা আপডেট করা হবে। প্রতি ক্যাটাগরির প্রতিযোগীদের মধ্য থেকে ১০ জন করে সর্বমোট ৩০ জন বিজয়ী নির্বাচন করা হবে। শিক্ষার্থীরা এ অ্যাপটি ব্যবহার করলে মানসিকভাবে আত্মবিশ্বাসী হবে বলেও জানান বিএনসিসির একজন কর্মকর্তা।

অনুষ্ঠানে বিএনসিসির মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাহিদুল ইসলাম খানসহ মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং বিএনসিসি সদর দপ্তরের সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের প্রতিনিধি, জেলা শিক্ষা অফিসার এবং জেলার বিশিষ্ট ব্যক্তিরা আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি অংশ নেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ