শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত খবর :
অটিস্টিক শিশুদের আবাসন ও কর্মসংস্থান করবে সরকার   ||   নারীর প্রতি যৌন ও পারিবারিক সহিংসতা ক্রমাগতই বাড়ছে   ||   শান্তিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের নব-নির্বাচিত সভাপতি হলেন মৃত্যুঞ্জয়ী ছাত্রনেতা ছদরুল ইসলাম  ||

প্রেমিকের বাড়ীতে বিয়ের দাবিতে দু’দিন অনশনের পর ফিরিয়ে নিয়েছে তার পরিবার।

রিপোর্টার নাম: / ৫৭ বার পঠিত:
আপডেট সময় : সোমবার, ১০ জুন, ২০২৪

সাইফুল ইসলাম

কাশিয়ানী (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে দুই দিন ধরে অনশন করছিলেন এক নারী (২৪)।

বিয়ে না করলে প্রেমিকের বাড়িতে আমরণ অনশনের ঘোষণা দিয়েছিল ওই নারী।

৮ জুন (শনিবার) থেকে উপজেলার দক্ষিণ ফুকরা গ্রামে জুলফিকার মোল্লার সন্তান প্রেমিক আরাফাত মোল্যার বাড়িতে এই অনশন করে ছিল।

এ ঘটনার পর প্রেমিক আরাফাত বাড়ি ছেড়ে আত্মগোপনে থাকে।

আজ বিকাল ৬ টায় ওই ভুক্তভোগী নারীকে তার পরিবার তাদের বাড়ীতে ফিরিয়ে নিয়ে যায়।

এসময় ওই নারীর দুলাভাই স্থানীয় কিছু ব্যক্তিবর্গের সামনে তার শালিকাকে বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে যায়।
বিষয়টি ভুক্তভোগী নারী মুঠোফোনে, কালবেলাকে নিশ্চিত করেছেন।
এবং উপজেলার ফুকরা ইউনিয়নের আরাফাত মোল্লার ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সহ স্থানীয়রা ফিরিয়ে নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ প্রেমিকা নারী
গত ৬ মাস আগে চাকরির জন্য গোপালগঞ্জ সদরে যায়। সেদিন বাসে করে বাড়িতে ফেরার পথে পরিচয় হয় আরাফাত মোল্যার সাথে। এর পর থেকে নিয়মিত মোবাইল ফোনে কথা হয়। একপর্যায়ে গড়ে ওঠে দুজনের প্রেমের সম্পর্ক।
স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বিভিন্ন স্থানে ঘুরতে যাওয়ায় একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক তৈরী হয়।
বিয়ের জন্য আরাফাতকে অনেকবার চাপ দেওয়া হয়।
নানা অজুহাত শুরু করে আরাফাত। একপর্যায়ে সবধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় প্রেমিক আরাফাত।
প্রেমিক নারী নিরুপায় হয়ে আরাফাতের খোঁজে ছুটে এসেছিল তার বাড়িতে।
আরাফাতের বাড়ীতে এসে ওই নারী জানতে পারে তার স্ত্রী- ও সন্তান রয়েছে।উপায়ান্তর না-পেয়ে বিয়ের দাবিতে ওই বাড়িতে অবস্থান নেন ওই নারী। গেল দুইদিন ধরে সেখানে অনশন করেছিল তিনি।
ওই প্রেমিক নারীর পূর্বের স্বামীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর তিনি বাবার বাড়িতে থাকেন। তাদের একটি পুত্রসন্তানও রয়েছে।

এ বিষয়ে কাশিয়ানী থানার রামদিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন কালবেলাকে জানান কোন পক্ষ অভিযোগ করেনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ