শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত খবর :
অটিস্টিক শিশুদের আবাসন ও কর্মসংস্থান করবে সরকার   ||   নারীর প্রতি যৌন ও পারিবারিক সহিংসতা ক্রমাগতই বাড়ছে   ||   শান্তিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের নব-নির্বাচিত সভাপতি হলেন মৃত্যুঞ্জয়ী ছাত্রনেতা ছদরুল ইসলাম  ||

এক চার্জে ৪০০ কিলোমিটার চলবে যে ই-কার

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক / ২৮৪ বার পঠিত:
আপডেট সময় : রবিবার, ২৭ মার্চ, ২০২২
এক চার্জে ৪০০ কিলোমিটার চলবে যে ই-কার

বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টাটা। সারাবিশ্বেই রয়েছে টাটার গ্রাহক। সম্প্রতি এই সংস্থা প্রবেশ করেছে বৈদ্যুতিক গাড়ির জগতে। এখানেও জনপ্রিয় হয়েছে গাড়িটির ইলেকট্রিক ভার্সনও।

এবার সেই জনপ্রিয়তার দিকে নজর রেখেই নিক্সন ইলেকট্রিক ভ্যারিয়েন্টের (Tata Nexon EV) একটি লং-রেঞ্জ ভার্সন (Long Range Version) নিয়ে আসতে চলেছে টাটা মোটরস।

টেস্টিং চলছে গাড়িটির যে কারণে বেশ কয়েকবার ভারতের রাস্তায় দেখা গিয়েছে গাড়িটিকে। ৬ এপ্রিল দেশে একটি ভার্চুয়াল প্রেস মিটের আয়োজন করেছে টাটা মোটরস। ধারণা করা হচ্ছে, সেই দিনই ভারতে লঞ্চ হতে পারে টাটা নিক্সন ইভি-র এই লং-রেঞ্জ ভার্সন বা ২০২২ টাটা নিক্সন ইভি।

২০২০ সালে থেকে ভারতীয় বাজারে ইলেকট্রিক গাড়ি নিয়ে এসেছে টাটা। তখন থেকেই এটি দেশের বেস্ট-সেলিং ইলেকট্রিক ভিহিকেল হিসেবে উঠে এসেছে।

এবারের টাটা নিক্সন ইভি-র লুকে তেমন বড়সড় কোনো পরিবর্তন করা হচ্ছে না। তবে একাধিক নতুন কালার স্কিম যে এই গাড়ির থাকতে পারে, সেটা মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি দেওয়া হতে পারে নতুন প্রযুক্তিও।

ফ্রন্ট ফ্যাসিয়া আগের মতোই থাকছে, যেখানে দেখা যাবে শার্প প্রোজেক্টর হাইলাইটস ও তার সঙ্গে এলইডি ডিআরএল। আবার ফ্রন্ট বাম্পারে আগের মতোই সিগনেচার ট্রাই অ্যারো প্যাটার্ন থাকবে। সম্পূর্ণ নতুন ডিজাইন করা অ্যালয় হুইল থাকবে এই আসন্ন নিক্সন ইভিতে।

তবে আগের মডেলের মতো একই এক্সটু প্ল্যাটফর্ম ব্যবহৃত হবে। পারফর্ম্যান্সের জন্য এই গাড়িতে দেওয়া হবে একটি বড় ৪০ কেডব্লুএইচ ব্যাটারি প্যাক, যার জন্য গাড়িটির ওজব সামান্য বেড়ে ১০০ কেজির কাছাকাছি হতে চলেছে। চারটি চাকাতেই থাকছে ডিস্ক ব্রেক, যার ফলে গাড়িটি থামানোর প্রক্রিয়া আরও সহজ হবে।

এই গাড়িতে এমনই একটি বড় ব্যাটারি প্যাক দেওয়া হচ্ছে, যার মাধ্যমে গাড়িটি একবার চার্জেই ৪০০ কিলোমিটার পর্যন্ত রেঞ্জ দিতে পারবে। যদি ধারণা সত্যি হয় তাহলে তার বাস্তবিক রেঞ্জ হতে পারে ৩২০ কিলোমিটারের কাছাকাছি।

নতুন টাটা নিক্সন ইলেকট্রিক ভেহিকলে ৩.৩ কিলোওয়াট এবং ৬.৬ কিলোওয়াট এসি চার্জিং দেওয়া হতে পারে। পাশাপাশি এই উন্নত রেঞ্জে বাছাই করা ব্রেক এনার্জি রিজেনারেশন মোডও দেওয়ার প্রভূত সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও এই নতুন টাটা নিক্সন ইলেকট্রিক ভেহিকলে ইলেকট্রনিক স্টেবিলিটি প্রোগ্রাম দিতে চলেছে টাটা মোটরস।

সব দিক থেকে এই গাড়িটি যে এই মুহূর্তে দেশের মার্কেটে সমস্ত ইলেকট্রিক গাড়ির থেকে সেরা হতে চলেছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। সেই সঙ্গে গাড়িটির দামও হতে চলেছে একটু চড়া। ধারণা করা হচ্ছে, আগের মডেলের চেয়ে সাড়ে ৩ লাখ টাকা বেশি হতে পারে নতুন টাটা নিক্সন ইলেকট্রিক ভিহিকেল।

সূত্র: গিজমোচায়না


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ